উদ্বেগজনক অবস্থায় ভারত

উদ্বেগজনক অবস্থায় ভারত

উদ্বেগজনক অবস্থায় ভারত। দেশটিতে গত এক সপ্তাহে প্রতিদিনের গড় আক্রান্ত সংখ্যা চার লাখ। এক সপ্তাহের গড় মৃত্যু সংখ্যা প্রায় চার হাজার।

এমন পরিস্থিতিতে দেশটি হারিয়েছে তাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। এমন ভয়াবহ অবস্থায় দেশের মানুষজন প্রহর গুনছে কবে শেষ হবে এই নরক যন্ত্রণা। 

image: prothom Alo

গত বছর ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে ভারতে প্রথম করোনা সংক্রমণ লক্ষ্য করা যায়। তারপর আস্তে আস্তে সংক্রমণ বাড়তে থাকে এবং বাড়তে থাকে মৃত্যুর সংখ্যা যেটা খুবই ভয়াবহ অবস্থা ভারতের।

https://indianexpress.com/article/india/coronavirus-india-live-updates-lockdown-restrictions-cases-deaths-second-wave-7305342/

কর্নার সংক্রমণ কমানোর জন্য ভারত সরকার তাদের জন্য ভ্যাকসিন ব্যবহারের নির্দেশ দেয় এবং পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করে। তারপরও ভারতে সংক্রমণ বৃদ্ধি আটকানো সম্ভব হয়নি,উদ্বেগজনক অবস্থায় ভারত

 

একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর করনা ভাইরাসের মিউটেশনের ফলে এটি আরও শক্তিশালী ও প্রতিরোধ অযোগ্য হয়ে উঠছে।

যার ফলে এটি তারা সাধারণ মানুষ সহজে আক্রান্ত হচ্ছে এবং মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে নতুন মিউটেশন হওয়া করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত রোগী বেশি।

দ্রুত এই নতুন ধরনের করোনাভাইরাস এর প্রতিরোধ খুঁজে না পাওয়া গেলে ভারত পরিণত হবে মৃত্যু পুরীতে।

উদ্বেগজনক অবস্থায় ভারত।


বৃহস্পতিবার সকালে ভারতের প্রেস ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায় বুধবার তুই কি বিষ্যুদবারে সকাল দশটা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৪১২৬১৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত করা হয়, আর নতুন মৃত্যুর সংখ্যা ৩৯৮২ জন। 

শুক্রবার সকালে ভারতের প্রেস ব্রিফিং এ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায় গত 24 ঘন্টায় নতুন করোনা শনাক্ত করা হয় ৪১৪৪৩৩ জনের দেহে। নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ৩৯২০ জনের। 

Image collected from: PTI Photo

সর্বশেষ খবরা-খবর অনুযায়ী ভারতের সর্ব মোট আক্রান্ত সংখ্যা ২১৪৮৫২৮৫ জন এবং সর্ব মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২৩৪০৭১ জন। 

প্রতিদিন প্রায় চার হাজার মৃতদেহ পোড়ানোর জায়গা নেই শ্মশান গুলোতে। বাধ্য হয়েই রাস্তার কোনায় অথবা পার্কের মাঠে সৎকার করা হচ্ছে। তাও আবার গণ ভাবে।

স্বজনদের হাহাকারে নরক এ পরিনত হয়েছে ভারত রাজ্য। দেশটিতে সংকট দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের ও। পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন না থাকার কারণে দেশটি আরও সমস্যায় ভুগছে। 

এমতাবস্থায় পাকিস্তান, সৌদি আরব এবং ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকা অক্সিজেন এবং অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু কোনো সাহায্যের হাত আসেনি চীন থেকে। 

প্রতিবেশী দেশের এমন ভয়াবহ অবস্থা দেখে বাংলাদেশ পাকিস্তান চীন নিজেদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করতে এবং করোনা পরিস্থিতি যেন এই দেশগুলোতে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে সেদিকেও বিশেষজ্ঞরা নজর দিচ্ছে। 

আরও জানতে দেখে নিতে পারেন আমাদের আরেকটি সংবাদ https://bhorerjatra.com/%e0%a6%ae%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%80-covid-19-%e0%a6%87%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%b8-%e0%a6%93-%e0%a6%86%e0%a6%a6%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%aa%e0%a6%be/

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here